সন্ধান শুরু হিটলারের স্বর্ণ ভর্তি ট্রেনের।

একটা গোটা ট্রেন ভর্তি ছিল সোনা। ছিল আরও নানা সম্পদ, টাকা, অস্ত্র। এক কথায় কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি। সেই আস্ত ট্রেনটি নাকি রয়েছে মাটির নীচে। গোপন সুড়ঙ্গে। বছরের পর বছর। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় হিটলারের নাৎসি বাহিনীর লুট করা সম্পদ ভর্তি সেই ‘গোল্ড ট্রেন’-এর ফের শুরু হল সন্ধান। অতীতে একাধিক বার ‘গোল্ড ট্রেন’-এর তল্লাশি করা হয়েছে। কিন্তু আজ পর্যন্ত সেই ট্রেনের সন্ধান মেলেনি।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের নাত্‍‌সি বাহিনীর লুট করা যাবতীয় সম্পত্তি নিয়ে ট্রেনটিকে মাটিতে পুঁতে দেয়া হয়। অনেক ইতিহাসবিদের দাবি, ট্রেনটিকে নাত্‍‌সিরা তাঁদের গোপন সুড়ঙ্গে পাচার করে দেয়। দক্ষিণ-পশ্চিম পোল্যান্ডের ওয়ালব্রিচে সেই রেল করিডরটি এখনো ট্রেজার হান্টারদের হাতছানি দেয়। গত বছর আগস্টে পোল্যান্ডের বৃদ্ধ Piotr Koper ও জার্মান নাগরিক Andreas Richter দাবি করেছিলেন, নাত্‍‌সি বাহিনীর সেই সম্পদে ঠাসা ট্রেনটির হদিশ তাঁরা পেয়েছেন। ৩২০ ফুটের ট্রেনটি রয়েছে মাটির নীচে।

কিন্তু বহু মানুষ দাবি করলেও, ট্রেনটি যে পোল্যান্ডের ওয়ালব্রিচেই মাটির নীচে রয়েছে, তার কোনো বৈজ্ঞানিক প্রমাণ মেলেনি। গোল্ড ট্রেন সার্চ প্রজেক্টের মুখপাত্র আন্দ্রেজ গেইকের কথায়, ‘ট্রেনটি তো আর খড় চাপা দেয়া নেই। যদি ট্রেনটি থাকে, তাহলে আমরা খুঁজে বের করবই।’ মঙ্গলবার সেই শতাব্দী প্রাচীন রেলপথ খোঁড়াখুঁড়ি শুরু করা হয়েছে। ট্রেজার হান্টারদের দাবি, খুব শিগগিরই গোল্ড ট্রেনের রহস্য ভেদ হবে।

হিটলার বাহিনীর ধন-সম্পদে ঠাসা ট্রেনটিতে ছিল, ৩০০ টন সোনা, অস্ত্র, বহুমূল্য রত্ন ও মূল্যবান সামগ্রী। এক কথায়, ‘আবার যখের ধন!’

সূত্র: এই সময়



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *