আমলকি জুসের আট গুণ।

আমলকির উপাকারিতা তো আমরা প্রায় সবাই জানি। তাই আমলকি থেকে তৈরি করা জুসেরও রয়েছে সমান উপকারিতা। আমলকির জুস লিভারের কার্যক্রম ভালো রাখে, হৃদপিণ্ড ভালো রাখতে সাহায্য করে। এ ছাড়া এর আছে আরো অনেক গুণ। এনডিটিভির স্বাস্থ্য বিভাগে জানানো হয়েছে আমলকির জুসের আট উপকারের কথা।

১. দিল্লির ওজন ব্যবস্থাপনা বিশেষজ্ঞ ডা. গার্জি শর্মার মতে, ফ্লু ও কফ দূর করতে আমলকির জুস বেশ শক্তিশালী ঘরোয়া ওষুধ। দুই চা চামচ আমলকির রস মধু দিয়ে প্রতিদিন খেলে কফ ও ঠান্ডা প্রতিরোধ হয়। পানির মধ্যে এক চা চামচ রস নিয়ে দুই বেলা গার্গল করলে মুখের আলসার দূর হয়।

২. নিয়মিত আমলকির জুস খেলে শরীরের বাজে কোলেস্টেরল কমে। এর মধ্যে থাকা এমাইনো এসিড ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হৃদপিণ্ডের কার্যক্ষমতা বাড়ায়।

৩. এটি ডায়াবেটিস রোগীদের বেশ উপকার করে। এ ছাড়া অ্যাজমা কমাতেও সাহায্য করে।

৪. বিশেষজ্ঞরা বলেন, এলকেলাইন প্রকৃতির জন্য হজমকে ভালো করে এবং শরীর পরিষ্কার করতে সাহায্য করে।

৫. এটি লিভারের কার্যক্রম ভালো রাখে এবং শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করে দেয়।

৬. ভিটামিন সি বাদেও এর মধ্যে রয়েছে আয়রন, ক্যালসিয়াম, ফসফরাসের জন্য এটি একটি পুষ্টিকর পানীয়ও বটে।

৭. আমলার মধ্যে থাকা এমাইনো এসিড ও প্রোটিন চুল বৃদ্ধিতে সাহায্য করে; এটি চুলপড়া প্রতিরোধ করে।

৮. আমলকির রস তুলায় ভিজিয়ে মুখে লাগান। এতে দাগ, ব্রণ দূর হবে। এ ছাড়া আমলকির জুস মুখের ছিদ্রভাব দূর করে।

সুত্রঃ ইন্টারনেট



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *